সংবাদ শিরোনাম:

ওমিক্রন ডেল্টার চেয়ে ভয়ংকর নয়: ড. বিজন

স্বদেশ বার্তা ডেস্কঃ করোনার দক্ষিণ আফ্রিকান ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রনের বর্তমান ধরন ডেল্টার চেয়ে ভয়ংকর নয়, তবে পুনরায় মিউটেশনের মাধ্যমে ভয়ংকর হতেও পারে বলে জানিয়েছেন অণুজীববিজ্ঞানী ও সাভারের গণবিশ্ববিদ্যালয়ের (গবি) মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. বিজন কুমার শীল। করোনাভাইরাসের সবশেষ এই ভ্যারিয?েন্ট কোভিড জীবাণুর সবচেয়ে বেশি মিউটেট হওয়া সংস্করণ। এর মিউেটশনের তালিকা এত দীর্ঘ যে বিজ্ঞানীরা একে ভয়াবহ বলে বর্ণনা করেছেন। ইতোমধ্যে দেশে ওমিক্রন প্রতিরোধে ১৫ দফা পদক্ষেপ কঠোরভাবে বাস্তবায়নের কথা বলেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। গতকাল সোমবার (২৯ নভেম্বর) করোনাভাইরাসের ওমিক্রন ধরন কতটা ভয়ংকর জানতে চাইলে অধ্যাপক ড. বিজন কুমার শীল বলেন, ওমিক্রনের সিকুয়েন্সিং ডাটা আমি দেখেছি, করোনাভাইরাসের ডেল্টা ধরনের সঙ্গে তুলনা করে দেখলাম, ওমিক্রনের প্রায় ৫০ বার মিউটেশন হয়েছে। এর মধ্যে ৩০টা মিউটেশন হয়েছে স্পাইক প্রোটিনে। আবার ১০টা মিউটেশন হয়েছে রিসেপ্টার ডোমেইন সাইডে। ভাইরাসের যে অংশটি প্রথম মানুষের দেহকোষের সঙ্গে সংযোগ ঘটায? তার নাম রিসেপ্টার বাইন্ডিং ডোমেইন। ওমিক্রনে ডেল্টার চেয়ে একটা পজিটিভ চার্ট বেশি। ডেল্টা ধরনে খুব শক্তিশালী একটা স্ট্রেইন ছিল পি৬৮১ পজিশনে, ওমিক্রনে এটা খুব বেশি শক্তিশালী নয়, দুর্বল। এটা যদি হলমার্ক হয়, তাহলে বর্তমানের ওমিক্রন ধরন ডেল্টার মতো ভয়ংকর নাও হতে পারে বলে আমার ধারণা। ওমিক্রন বিষয়ে পর্যাপ্ত গবেষণা এখনও হয়নি, তবে বর্তমান সিকোয়েনসিংয়ে আমি যা দেখলাম, তাতে এটা ডেল্টার চেয়ে বেশি ভয়ংকর নয়, তবে সে আবারও পরিবর্তিত হতে পারে। করোনার ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টে টিকা এবং ওষুধ কতটা কার্যকর জানতে চাইলে এই অণুজীববিজ্ঞানী বলেন, বর্তমানে করোনার যেকোনো টিকা প্রায় ৭০ শতাংশ সুরক্ষা দেবে। শুধু ওমিক্রন নয়, যদি আগের ওয়ান ভাইরাসও আসে মানুষের শরীরে ঢুকলে সে গ্রো করবে এটা নিশ্চিত। তবে যাদের শরীরে অ্যান্টিবডি রয়েছে, তাদের শরীরে ভাইরাসটি ঢুকে যখন রক্তের সংস্পর্শে আসবে, তখনই ভাইরাসটি মারা যাবে। রক্তের সংস্পর্শে আসার আগ পর্যন্ত ভাইরাসটি গ্রো করতে থাকবে, সেটা যেকোনো ভেরিয়েন্টেরই হোক না কেন। তিনি আরও বলেন, ওমিক্রন যদি বাংলাদেশে আসেও, ভাইরাসটি নিঃসন্দেহ গ্রো করবে। তবে আমাদের শরীরে অ্যান্টিবডি রয়েছে, সেটা হাই লেভেল, লো লেভেল কিংবা মেমোরি সেল পর্যায়ে থাকুক না কেন। যেহেতু আমাদের শরীরে মেমোরি সেল রয়েছে, তা আমাদের সাহায্য করবে। তবে মার্চ মাসের মতো করোনার ভয়াবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি হবে না। তবে যাদের টিকা নেওয়া নেই, কিংবা শরীরে অ্যান্টিবডি বা মেমোরি সেল নেই, তার ক্ষেত্রে জটিলতা হতে পারে।

নিউজটি 205 বার পড়া হয়েছে

Leave a Reply

Your email address will not be published.

সর্বশেষ সংবাদ

ঘণ্টায় ১১৭ কিমি বেগে আঘাত হানতে পারে ‘শক্তিশালী জাওয়াদ’

করোনার সাথে লড়াই করে আজ তারা নারী উদ্যোক্তা

বাইপাস সংলগ্ন আবর্জনার স্তুপ শীঘ্রই নতুন ডাম্পিং স্পটে স্থানান্তর করা হবে-পৌর মেয়র

ভোট কেন্দ্রে সহিংসতা ও ব্যালট ছিনতাইয়ের ঘটনায় মামলা

হবিগঞ্জে জামানত হারালেন ২৯ চেয়ারম্যান প্রার্থী

মাধবপুরে গ্রামীণফোন সেন্টার উদ্বোধন

কুশিয়ারা নদী থেকে অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার

মাধবপুরে মৎস্য চাষীদের প্রশিক্ষণ প্রদান অনুষ্ঠিত

বানিয়াচংয়ে আইনশৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত

ওমিক্রন ডেল্টার চেয়ে ভয়ংকর নয়: ড. বিজন

উমেদনগরের বিশিষ্ট আড়তদার জালাল উদ্দিনের ইন্তেকাল

ভারতকে হারিয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজ শুরু টাইগার যুবাদের

হবিগঞ্জে ৮ ইউপি নির্বাচনে বিজয়ী নৌকা ৪ , স্বতন্ত্র ৪

হবিগঞ্জে অবৈধ ইটভাটার ছড়াছড়ি, হুমকিতে পরিবেশ

পইলে জাল ভোট দেওয়ায় নারীর কারাদন্ড

মাধবপুরে এনা বাসের ধাক্কায়, ১ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

নবীগঞ্জে ১৩ ইউনিয়নের ৪টিতে নৌকা, ৯টিতে স্বতন্ত্র ও বিদ্রোহী জয়ী

সাবেক এমপি আব্দুল মোছাব্বির এর ৩য় মৃত্যু বার্ষিকী পালন

মাধবপুর কালিকাপুরের নজরুল গাজীর ১০ মাসের সাজা

নবীগঞ্জে ব্যালট দেরিতে আসায় তিন ঘণ্টা পর শুরু হলো ভোট গ্রহণ

সম্পাদক ও প্রকাশক ॥ মোঃ ইসমাইল হোসেন
প্রাইম অফসেট প্রিন্টিং প্রেস পৌর মার্কেট হবিগঞ্জ থেকে মুদ্রিত ও গার্নিং পার্ক হবিগঞ্জ হতে প্রকাশিত।।
মোবাইল ॥ ০১৭১৫-০০২৮৮৬
ইমেইল- swadeshbarta.hob@gmail.com
website : www.swadeshbarta.com