সংবাদ শিরোনাম:
» « নতুন বছর শুরু হবে শৈত্যপ্রবাহ দিয়ে» « শায়েস্তাগঞ্জে সালিশ বৈঠকে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ১ জন নিহত» « ফের পাকিস্তান বাহিনীকে সীমান্তে আটকাল তালেবান» « তরুণীকে ব্ল্যাকমেইল করে ২ বছর ধর্ষণ» « পাহাড়ে আধিপত্য ও প্রভাব বিস্তার নিয়ে প্রাণ গেছে ৯ জনের» « নবীগঞ্জে কুশিয়ারা নদীর চর কেটে বালু বিক্রি ॥ কোটি টাকার রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার» « শিয়ালের আক্রমণ থেকে বাঁচতে কৃষকের বাড়িতে হরিণ শাবক» « নতুন বছরে দেশবাসীকে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হওয়ার ডাক প্রধানমন্ত্রীর» « পিবিআইয়ের তদন্তে হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে কিশোরী হত্যার রহস্য উন্মোচন» « ঘণ্টায় ১১৭ কিমি বেগে আঘাত হানতে পারে ‘শক্তিশালী জাওয়াদ’

নতুন বছরে দেশবাসীকে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হওয়ার ডাক প্রধানমন্ত্রীর

স্বদেশ বার্তা রিপোর্ট ॥ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইংরেজি নববর্ষে দেশবাসী এবং প্রবাসী বাঙালিসহ বিশ্ববাসীকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। ‘খ্রিষ্টীয় নতুন বছর-২০২২’ উপলক্ষে শুক্রবার এক বাণীতে তিনি এই শুভেচ্ছা জানান।
শুভেচ্ছা বাণীতে প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রকৃতির নিয়মেই যেমন নতুনের আগমনি বার্তা আমাদের উদ্বেলিত করে, তেমনি অতীত-ভবিষ্যতের সন্ধিক্ষণে দাঁড়িয়ে পুরনো স্মৃতি সম্ভারে হারিয়ে যাওয়ার চিরায়ত স্বভাব কখনো আনন্দ দেয়, আর কখনো বা কৃতকর্মের শিক্ষা নব উদ্যোমে সুন্দর আগামীর পথচলার জন্য অনুপ্রেরণা যোগায়।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০২০ এবং ২০২১ খ্রিষ্টাব্দ বাঙালি জাতির জীবনে ছিল এক গুরুত্বপূর্ণ মাইলফলক। আমরা এ সময়ে জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের অনুষ্ঠান-২০২১ সাল পর্যন্ত বর্ধিত করে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী অনুষ্ঠানের সঙ্গে একযোগে পালনের কর্মসূচি গ্রহণ করি। এরই মধ্যে আমরা চলতি-২০২১ সালের মার্চ মাসে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ১০ দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করি। যেখানে সার্কভুক্ত ৫টি দেশের রাষ্ট্রপ্রধান বা সরকারপ্রধানরা সুবর্ণজয়ন্তী অনুষ্ঠানমালায় যোগ দিয়েছিলেন। তাছাড়া বিশ্বের ৭৭টি দেশের রাষ্ট্রপ্রধান বা সরকারপ্রধান ও আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রধানরা ভিডিও বার্তা এবং অভিনন্দনপত্র প্রেরণ করেছেন, যেখানে সবাই আমাদের সরকারের গৃহীত উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন।
শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের সরকারের উদ্যোগে বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশের রাজধানী এবং গুরুত্বপূর্ণ শহরে জাতির পিতার নামে স্মারক ভাস্কর্য স্থাপন, সড়ক ও পার্কের নামকরণ করা হয়েছে। ইউনেস্কো বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের অংশ হিসেবে সৃজনশীল অর্থনীতিতে আন্তজার্তিক পুরস্কার প্রবর্তন করেছে। গত ১৩ বছর ধরে আওয়ামী লীগ সরকারের গৃহীত জনকল্যাণমুখী ও অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়ন নীতি বাস্তবায়নের ফলে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অগ্রগতির মানদণ্ডে বিশ্বের প্রথম ৫টি দেশের মধ্যে স্থান করে নিয়েছে।
তিনি বলেন, গোটা বিশ্বের অর্থনীতি যেখানে মারাত্মকভাবে বিপর্যস্ত সেখানে করোনাকালেও আমরা ৫ দশমিক ৫ শতাংশ জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছি। আমরা দারিদ্র্যের হার ২০ দশমিক ৫ শতাংশের নিচে নামিয়ে এনেছি। মাথাপিছু আয় ২ হাজার ৫৫৪ মার্কিন ডলারে উন্নীত করেছি। কৃষি, স্বাস্থ্য, শিক্ষা খাতেও অভূতপূর্ব উন্নয়ন সাধন করেছি। এখন আমাদের মানুষের গড় আয়ু ৭৩ বছর। ৯৯ দশমিক ৫ শতাংশ মানুষকে বিদ্যুৎ সুবিধা দিচ্ছি। পদ্মা সেতু নতুন বছরের মধ্যবর্তী সময়ে খুলে দেওয়ার পরিকল্পনা করছি। রাজধানীতে মেট্রোরেল ও এক্সপ্রেসওয়ে এবং কর্ণফুলী নদীর তলদেশে টানেল নির্মাণকাজ দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। সড়ক, রেল ও বিমান যোগাযোগ ব্যবস্থাকে আধুনিক করেছি। ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা প্রায় ১৩ কোটি। তথ্যপ্রযুক্তি নির্ভর কর্মসংস্থানের অবাধ সুযোগ সৃষ্টি করেছি।
শেখ হাসিনা বলেন, প্রথম ‘বাংলাদেশ প্রেক্ষিত পরিকল্পনা’ এর সফল বাস্তবায়নের মাধ্যমে রূপকল্প-২০২১ অর্জন করেছি। দেশকে আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশে রূপান্তরিত করেছি। মুজিববর্ষে আমরা অঙ্গীকার করেছি কেউ গৃহহীন থাকবে না। আমরা শহরের সব সুযোগ-সুবিধা প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলেও পৌঁছে দেব।
নানা প্রতিবন্ধকতাকে জয় করে বাংলাদেশকে সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন উল্লেখ করে বাণীতে প্রধানমন্ত্রী বলেন, চলমান করোনা মহামারি পরিস্থিতি থেকে পরিত্রাণের লক্ষ্যে তিনি ৩১ দফা নির্দেশনা দিয়েছেন। ক্রান্তিকাল উত্তরণে ডাক্তার-নার্স-টেকনিশিয়ান নিয়োগ করা হয়েছে। দরিদ্র অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানো, অর্থনীতির চাকা সচল রাখা এবং উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখার লক্ষ্যে ২৮টি প্যাকেজের আওতায় ১ লাখ ৮৭ হাজার ৬৭৯ কোটি টাকার প্রণোদনা দিয়েছি।
শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমাদের সরকারের নিরলস প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হওয়ার চূড়ান্ত সুপারিশ লাভ করেছে। বাংলাদেশ ‘এসডিজি প্রোগ্রেস অ্যাওয়ার্ড’ লাভ করেছে। আমরা ২০৩১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উচ্চ-মধ্যম আয়ের এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে দ্বিতীয় প্রেক্ষিত পরিকল্পনা বাস্তবায়ন শুরু করেছি। আমরা ‘বাংলাদেশ ব-দ্বীপ পরিকল্পনা-২১০০’ বাস্তবায়ন শুরু করেছি। আমাদের সরকার তারুণ্যের শক্তির সঙ্গে ও অত্যাধুনিক প্রযুক্তিজ্ঞান সমন্বিত করে চতুর্থ শিল্প বিপ্লবে নেতৃত্ব দেওয়ায় সক্ষম প্রজন্ম সৃষ্টিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।’
ত্রিশ লাখ শহিদের রক্ত ও ২ লাখ মা-বোনের সম্ভ্রমের বিনিময়ে অর্জিত স্বাধীনতাকে সর্বদা সমুন্নত রাখা, দেশকে ভালোবাসা, দেশের মানুষের সার্বিক কল্যাণে সর্বশক্তি নিয়োগ করা, ধর্মীয় উগ্রবাদসহ যে কোনো সন্ত্রাসবাদকে প্রতিহত করার জন্য সবাইকে নতুন বছরে প্রতিজ্ঞা করার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।
শেখ হাসিনা তার বাণীতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে উন্নত-সমৃদ্ধ ও অসাম্প্রদায়িক চেতনার সোনার বাংলাদেশ গড়ে তুলতে নতুন বছরে মানুষে-মানুষে সৌহার্দ্য ও ভ্রাতৃত্বের বন্ধন জোরদার, সব সংকট দূরীভূত এবং সবার জীবনে অনাবিল সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করেন।

নবীগঞ্জে কুশিয়ারা নদীর চর কেটে বালু বিক্রি ॥ কোটি টাকার রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার
নবীগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ নবীগঞ্জ উপজেলার দীঘলবাক ইউনিয়নে কুশিয়ারা নদীর চর কেটে ফের বালু ও মাটি বিক্রি করছে স্থানীয় কয়েকটি প্রভাবশালী মহল। কোনো ধরণের ইজারা ছাড়াই উপজেলার দীঘলবাক ইউনিয়নের কসবা গ্রামে কয়েক মাস ধরে এ ঘটনা ঘটছে। এর ফলে সরকার হারাচ্ছে কোটি কোটি টাকার রাজস্ব। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয়রা জানান, স্থানীয় ভূমি অফিসকে ম্যানেজ করেই সরকারের সম্পদ চুরি করে বিক্রি করা হচ্ছে বিভিন্ন কোম্পানির কাছে। জানা যায়, উপজেলার দীঘলবাক ইউনিয়নের বুক চিড়ে প্রবাহিত কুশিয়ারা নদীতে বর্তমান সময়ে পানি না থাকায় কসবা গ্রামে বিশাল চর জেগেছে। কয়েক মাস ধরে বিশাল স্থান নিয়ে জাগা এই চরে স্থানীয় ৪-৫টি সড়ঘবদ্ধ প্রভাবশালী চক্র কসবা গ্রামের কুশিয়ারা নদীর ঘাট এলাকায় অবস্থান নিয়েছে। প্রতিদিন ভোরে ও সন্ধ্যার পর ওই সড়ঘবদ্ধ চক্রের ৪৫-৫০ জন শ্রমিক তারা নদীর চর কেটে ট্রাকে বালু ও মাটি তোলে দেন। বালুগুলো বিভিন্ন কোম্পানির কাছে বিক্রি করা হয়। আর মাটি বিক্রি করা হয় ভিটা বাড়ি ভরাটের জন্য। নদীর চর থেকে প্রতি ট্রাক বালুর দাম ৫০০ থেকে ৬০০ টাকা নেওয়া হচ্ছে। প্রতিদিন ৫০-৬০ ট্রাক বালু বিক্রি করা হচ্ছে। কুশিয়ারা নদীর চরের বালু মাটি বিক্রি করে সড়ঘবদ্ধ কুচক্রী মহল লাভবান হলেও কিছু অসাধু কর্মকর্তা কর্মচারীদের ছত্রছায়ায় সরকার কোটি কোটি টাকার রাজস্ব হারাচ্ছে। এদিকে বন্যা কবলিত এলাকা হিসেবে দীঘলবাক ইউনিয়নে গত বছর প্রায় কয়েক শতাধিক পরিবারের ঘর-বাড়ি পানির নিচে তলিয়ে যায়। ঝুকিঁপূর্ন এলাকা হওয়া সত্ত্বেও কী ভাবে প্রকাশ্যে এ ইউনিয়নে নদীর চর কেটে অবাধে বালু বিক্রি করা হচ্ছে এনিয়ে রয়েছে নানা প্রশ্ন। অন্যদিকে নদীর চর থেকে প্রকাশ্যে ক্ষমতার দাপটে সরকারি সম্পদ চুরি করে বিক্রি করার বিষয়ে প্রশাসনের ভূমিকা নিয়ে নানা আলোচনা দেখা দিয়েছে !। বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) হবিগঞ্জ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল সোহেল বলেন, নদী মাতৃক আমাদের এই বাংলাদেশ। কিছু অসাধু লোকজনের কারণে নদীর চর কেটে বালু বিক্রি করার উৎসব চলছে। তাই দ্রুত চর কাটা বন্ধে প্রশাসন সোচ্ছার হবে বলে আশাবাদী। এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মহিউদ্দিন বলেন, ইতিমধ্যে খবর পেয়ে আমি কয়েকদিন ঘটনাস্থলে গিয়েছি, কিন্তু সেখানে কাউকে পাওয়া যায়না। প্রশাসনের উপস্থিতি টের পেয়ে তারা পালিয়ে যায়। যারা নদীর চর কেটে বালু বিক্রি করছে তাদের সবার বিরুদ্ধে শীঘ্রই নিদিষ্ট বালু ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন ২০১০ এর আওতায় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নিউজটি 7 বার পড়া হয়েছে

Leave a Reply

Your email address will not be published.

সর্বশেষ সংবাদ

নতুন বছর শুরু হবে শৈত্যপ্রবাহ দিয়ে

শায়েস্তাগঞ্জে সালিশ বৈঠকে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ১ জন নিহত

ফের পাকিস্তান বাহিনীকে সীমান্তে আটকাল তালেবান

তরুণীকে ব্ল্যাকমেইল করে ২ বছর ধর্ষণ

পাহাড়ে আধিপত্য ও প্রভাব বিস্তার নিয়ে প্রাণ গেছে ৯ জনের

নবীগঞ্জে কুশিয়ারা নদীর চর কেটে বালু বিক্রি ॥ কোটি টাকার রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার

শিয়ালের আক্রমণ থেকে বাঁচতে কৃষকের বাড়িতে হরিণ শাবক

নতুন বছরে দেশবাসীকে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হওয়ার ডাক প্রধানমন্ত্রীর

পিবিআইয়ের তদন্তে হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে কিশোরী হত্যার রহস্য উন্মোচন

ঘণ্টায় ১১৭ কিমি বেগে আঘাত হানতে পারে ‘শক্তিশালী জাওয়াদ’

করোনার সাথে লড়াই করে আজ তারা নারী উদ্যোক্তা

বাইপাস সংলগ্ন আবর্জনার স্তুপ শীঘ্রই নতুন ডাম্পিং স্পটে স্থানান্তর করা হবে-পৌর মেয়র

ভোট কেন্দ্রে সহিংসতা ও ব্যালট ছিনতাইয়ের ঘটনায় মামলা

হবিগঞ্জে জামানত হারালেন ২৯ চেয়ারম্যান প্রার্থী

মাধবপুরে গ্রামীণফোন সেন্টার উদ্বোধন

কুশিয়ারা নদী থেকে অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার

মাধবপুরে মৎস্য চাষীদের প্রশিক্ষণ প্রদান অনুষ্ঠিত

বানিয়াচংয়ে আইনশৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত

ওমিক্রন ডেল্টার চেয়ে ভয়ংকর নয়: ড. বিজন

উমেদনগরের বিশিষ্ট আড়তদার জালাল উদ্দিনের ইন্তেকাল

সম্পাদক ও প্রকাশক ॥ মোঃ ইসমাইল হোসেন
প্রাইম অফসেট প্রিন্টিং প্রেস পৌর মার্কেট হবিগঞ্জ থেকে মুদ্রিত ও গার্নিং পার্ক হবিগঞ্জ হতে প্রকাশিত।।
মোবাইল ॥ ০১৭১৫-০০২৮৮৬
ইমেইল- swadeshbarta.hob@gmail.com
website : www.swadeshbarta.com