সংবাদ শিরোনাম:

এড়ালিয়ায় অন্তঃস্বত্ত্বা গৃহবধূ হত্যার রহস্য উন্মোচন-যৌতুকের জন্য গলাটিপে হত্যা করেছে পাষন্ড স্বামী ॥ আদালতে স্বীকারোক্তি

স্টাফ রিপোর্টার ॥ হবিগঞ্জ শহরতলীর এড়ালিয়া গ্রামের অন্তঃস্বত্ত্বা গৃহবধূ অনুফা আক্তার ওরফে সোনাই বিবি (১৭) হত্যার ঘটনা অবশেষে উন্মোচন করেছে সদর থানার পুলিশ। অনুফার স্বামী ঘাতক বিলাল মিয়া (২০) আদালতে স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি প্রদান করেছে। গতকাল রোববার বিকেলে হবিগঞ্জের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ তৌহিদুল ইসলামের আদালতে প্রধান আসামী ঘাতক বিলাল মিয়া ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি প্রদান করে। জবানবন্দির বরাত দিয়ে সদর থানার ওসি মোঃ মাসুক আলী এ প্রতিনিধিকে জানান, প্রায় ২ বছর ধরে বিলালের চাচাতো বোন অনুফার সাথে প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল। সকলের অমতে ৭ মাসে পূর্বে পালিয়ে গিয়ে তারা বিয়ে করে। বিয়ের পর থেকে বিলাল ও তার পরিবার যৌতুকের জন্য অনুফার উপর নির্যাতন নিপীড়ন চালিয়ে আসছিল। ১৮ মার্চ রাত ১০টায় অনুফা ও বিলাল এর মধ্যে যৌতুকের বিষয় নিয়ে কথাকাটাকাটি ও ঝগড়া হয়। এসময় বিলালের পিতা আব্দুল হাসিম, মা চান বানু, ভাই রাজু মিয়া ও বোন ঘটনাস্থলে এসে বিলাল মিয়াকে নিভৃত না করে অনুফাকে যৌতুকের জন্য গালিগালাজ করে। পরে উক্ত উপরোক্তদের পরোচনা রাতেই বিলাল অনুফাকে গলাটিপে হত্যা করে লাশ নিয়ে সারারাত বসে থাকে। ফজরের আজানের আগে স্থানীয় জামে মসজিদের পুকুরে অনুফার মৃত দেহ ফেলে দেয়। সকালে স্থানীয় লোকজন লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। এদিকে বিলাল ও তার পরিবার অনুফা আত্মহত্যা করেছে বলে প্রচার করে। ওসি আরো জানান, প্রথম থেকেই তাদের সন্দেহ হয় এটি নিশংস্ব হত্যাকান্ড। ঘটনাস্থলে যান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রবিউলসহ অন্যান্য পুলিশ সদস্যরা। এরপর থেকেই অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ও সদর থানার গোপন ও প্রকাশ্যে বিষয়টি উন্মোচন করার জন্য মাঠে নামেন। গত শনিবার এই মামলার প্রধান আসামী বিলাল মিয়াকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে হত্যার ঘটনা পুলিশের কাছে স্বীকার করে। এছাড়া অন্যান্য আসামীদের নাম প্রকাশ করে। গত শনিবার রাতে পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে উল্লেখিতদের আটক করে। গতকাল রোববার সকলকেই কোর্টে মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়। এ ঘটনায় নিহত অনুফার বাবা সওদাগর মিয়া বাদী হয়ে হবিগঞ্জ সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলার প্রধান আসামী ঘাতক বিলাল মিয়া, ভাই রাজু মিয়া, পিতা আব্দুল হাসিম, মা চানবানু, বোন ও বোন জামাই সাদেক মিয়া।

নিউজটি 13 বার পড়া হয়েছে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সর্বশেষ সংবাদ

ছুটি বাড়ানোর প্রজ্ঞাপন জারি হয়েছে : অফিস খুলবে ১২ এপ্রিল

গণহারে মাস্ক পরতে মানা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার

আজ থেকে কঠোর হচ্ছে সেনাবাহিনী

হজ বাতিল হলে হজযাত্রীদের অর্থ ফেরত দেবে সৌদি

মাধবপুরে নিম্নআয়ের মানুষের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরন

করোনা প্রতিরোধে ঘরে ঘরে খাদ্য সামগ্রি নিশ্চিত করার লক্ষ্যে হবিগঞ্জে জেলা প্রশাসনের চাল বিতরণ

লাখাইর বিভিন্ন বাজারে বাজারে সেনা সদস্যদের টহল: বাজার গুলো জনশূন্য

করোনাভাইরাস: আক্রান্ত ৫ লাখ ছাড়াল, মৃত্যু ২৪ হাজার

হবিগঞ্জে মাঝ রাতে মসজিদে মসজিদে আজানের ধ্বনি- করোনা থেকে বাঁচার আকুতি

নবীগঞ্জ বাজারে বাজারে সেনা সদস্যদের টহল: রাস্তাঘাট ফাঁকা

পত্রিকা বন্ধের ঘোষণা

আজ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে হবিগঞ্জ অঘোশিত লকডাউন আগামী শনিবার থেকে নি¤œ আয়ের মানুষকে সহায়তা দেওয়া শুরু হবে-জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামরুল হাসান

আমরা এ যুদ্ধে জয়ী হব, ইনশাআল্লাহ ॥ জাতির উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী

হবিগঞ্জ পৌর কমিটির সভায় এমপি আবু জাহির-করোনা ভাইরাস সম্পর্কে সকলকে সচেতন থাকার আহবান

চুনারুঘাটে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের অভিযান ১৩ হাজার টাকা জরিমানা

শায়েস্তাগঞ্জে ৫ দোকানে জরিমানা

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে আদালত প্রাঙ্গণে পুলিশ সুপারের নির্দেশে জীবানুনাশক স্প্রে প্রয়োগ

সম্পাদক ও প্রকাশক ॥ মোঃ ইসমাইল হোসেন
প্রাইম অফসেট প্রিন্টিং প্রেস পৌর মার্কেট হবিগঞ্জ থেকে মুদ্রিত ও গার্নিং পার্ক হবিগঞ্জ হতে প্রকাশিত।।
মোবাইল ॥ ০১৭১৫-০০২৮৮৬
ইমেইল- swadeshbarta.hob@gmail.com
website : www.swadeshbarta.com